চাকরি দেয়ার কথা বলে আবাসিক হোটেলে আ’টকে রেখে দুই তরুণীকে দে’হ ব্যবসা বা’ধ্য করার ঘ’টনায় হোটেলের তিন কর্মচারীকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। এ সময় দুই তরুণীকে উ’দ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (০২ আগস্ট) রাতে নগরীর দক্ষিণ চকবাজার এলাকার ‘হোটেল পায়েল’ এ অ’ভিযান চালান মহানগর গো’য়েন্দা পু’লিশের (ডি’বি) সদস্যরা।

অ’ভিযানে উ’দ্ধার এক তরুণীর (১৮) বাড়ি ঝালকাঠি এবং আরেক তরুণীর (১৯) বাড়ি বরগুনায়। গ্রে’ফতাররা হলেন- মো. সেলিম চৌকিদার, মো. আনোয়ার হোসেন ও মো. বেলাল গাজী।

তারা হোটেল পায়েলের কর্মচারী।মহানগর গো’য়েন্দা পু’লিশের (ডি’বি) সহকারী কমিশনার মো. রবিউল ইসলাম শামীম বলেন, চাকরি দেয়ার কথা বলে দুই তরুণীকে হোটেল পায়েলে আ’টকে রেখে যৌ’ন ব্যবসায় বা’ধ্য করা হয়েছে-

এমন খবর পেয়ে রোববার দিবাগত রাতে অ’ভিযান চা’লানো হয়। এ সময় দুই তরুণীকে উ’দ্ধার করা হয়। সেই স’ঙ্গে তিন কর্মচারীকে গ্রে’ফতার করা হয়।

রবিউল ইসলাম বলেন, উ’দ্ধারের পর দুই তরুণী পু’লিশকে জানান, ভালো বেতনে অফিসে চাকরির কথা বলে তাদের হোটেলে এনে দে’হ ব্যবসায় বা’ধ্য করা হয়।

মাসখানেক ধরে তাদের হোটেলে আ’টকে রাখা হয়েছে। তাদের দিয়ে দে’হ ব্যবসা করিয়ে টাকা উপার্জন করেছেন হোটেল মালিক।

তারা কয়েকবার পা’লিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। তবে হোটেলের লোকজন দিনরাত তাদের পাহারায় থাকেন। সে কারণে পালাতে ব্যর্থ হন তারা।

সহকারী পু’লিশ কমিশনার রবিউল ইসলাম আরও বলেন, হোটেলে দে’হ ব্যবসার স’ঙ্গে কয়েকজন জ’ড়িত। তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। দুই তরুণীকে আ’টকে রেখে দে’হ ব্যবসায় বা’ধ্য করায় মা’মলা হয়েছে। গ্রে’ফতার তিন কর্মচারীকে কা’রাগারে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here