অক্টোবরে বিনোদন জগত ছেড়ে ধর্মের পথে ফিরে আসার ঘোষণা দিয়েছিলেন অভিনেত্রী সানা খান। এরপর নভেম্বরে তিনি গুজরাতের মাওলানা আনাস সাঈদকে বিয়ে করেন।

এঘ’টনায় অনেকে সমালোচনা করে প্রশ্ন তোলেন- সানাকে জো’র করে মিডিয়া ত্যাগ করতে বলেছেন কিনা তা নিয়ে। অবশেষে সানার বিনোদন দুনিয়া ছাড়া নিয়ে মুখ খুললেন মাওলানা আনাস।

গত ৬ মাস আগে ইনস্টাগ্রামে সানা জানিয়েছিলেন তিনি হিজাব পরবেন। মানুষ ভেবেছিল, এটা ম’হামা’রীর কারণে।

কিন্তু সানা সবসময় কাজের জায়গা থেকে নিজেকে আলাদা রাখতে চেয়েছিলেন। আমি ভেবেছিলাম, ওকে কিছুটা সময় দেওয়া উচিৎ। তবে ও হঠাৎ বিনোদন দুনিয়া ছাড়ার কথা ঘোষণা করে দিল। এতে আমিও কিছুটা হতবাক হয়েছিলাম।

আনাস সাঈদ আরও বলেন, আমি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছিলাম যে, আমি সানাকে বিয়ে করতে চাই এবং তিনি আমার প্রার্থনা শুনেছিলেন।

আমার মনে হয় আমি যদি অন্য কারও স’ঙ্গে বিয়ে করতাম, হয়ত এত খুশি হতাম না। সানা নিজে সম্পূর্ণ নয়। তবে ও আধ্যাত্মিক, ক্ষমাশীল এবং স্বচ্ছ হৃদয়ের মানুষ। আমি সর্বদা এমন একটি মেয়েকে চেয়েছিলাম যে আমার পরিপূরক এবং আমাকে সম্পূর্ণ করবে।

অনেকে এখনও আমাকে জিজ্ঞাসা করেন যে, আমি কীভাবে অভিনেত্রীকে বিয়ে করতে পারি? যারা এমন প্রশ্ন করছেন তারা সংকীর্ণ মনের।

এটি আমার জীবন এবং এটির বি’ষয়ে কারও মন্তব্য করা উচিত নয়। লোকেরা নির্দ্বিধায় ভাবতে পারে যে আমাদের মধ্যে কোনও মিল নেই, তবে আমরা জানি আমরা কতটা সামঞ্জস্যপূর্ণ।

উল্লেখ্য, বিয়ের পর সম্প্রতি কাশ্মীরে মধুচন্দ্রিমা কাটিয়েছেন সানা খান ও আনাস সাঈদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here