অ’বৈধ খাল দ’খলকারীরা নিজ উদ্যোগেই স্থাপনা সরিয়ে নিন। এখন থেকে অ’বৈধ স্থাপনা সরাতে আর কোন বৈধ নোটিশ দেওয়া হবে না সরাসরি উ’চ্ছেদ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

রোববার (১০ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ‘সবার আগে ঢাকা অ্যাপ’ উদ্বোধ’ন অনুষ্ঠানে মেয়র এ কথা বলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকার বাইরে তুরাগে নতুন সিটি করছি। এখনও যেহেতু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে দেখাইনি, তাই আপনাদের এখন প্রদর্শন করবো না। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি আপনারা অভিভূত হবেন। ইকোলজিক্যাল সবকিছু দিয়ে যদি দৃষ্টিনন্দন সিটি করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, পুরান ঢাকাকে নতুনভাবে পুনর্নির্মাণ করার মাধ্যমে ঢাকা একটি দেখার মতো শহর হবে। আমি বিশ্বাস করি বিদেশিরা আসবেন বাংলাদেশ দেখার জন্য।

তিনি বলেন, যদি হাতিরঝিল থেকে বনানী পর্যন্ত, হাতিরঝিল থেকে ইউনাইটেড হাসপাতাল পর্যন্ত এবং অন্যান্য খাল যদি নতুন দিগন্তে উন্মোচন করতে পারি তাহলে আমাদের ঢাকা বিদেশ থেকেও আরও অনেক দৃষ্টিনন্দন হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ত’থ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি।

এর আগে ৫ জানুয়ারি বেলা ১১টায় রাজধানীর ভাসানটেক পকেট গেট পর্যন্ত আধা কিলোমিটার রাস্তা দ’খলমুক্ত করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।

ভবন মালিকরা নোটিশ না দিয়ে উ’চ্ছেদ করার অভিযোগ তুললেও এমন কোনো নিয়ম নেই বলে জানিয়েছে রাজউক। পরে রাজউক রাস্তার ও’পর নির্মিত অনুমোদনহীন ভবনের অংশ ভে’ঙে ফে’লে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, দ’খলদাররা যতই শ’ক্তিশালী হোক যে কোনো মূ’ল্যে রাস্তা দ’খলমুক্ত করা হবে। সিটি কর্পোরেশনের দাবি, নকশায় রাস্তা ২০ ফুট চওড়া হলেও চার থেকে পাঁচ ফুট পর্যন্ত দ’খলে চলে গেছে।

পর্যায়ক্রমে রাজধানীর সব রাস্তা ও খাল দ’খলমুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছে নগর কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here